চারখাই হচ্ছে সিলেটের নতুন উপজেলা

সিলেটের নতুন উপজেলা হিসেবে স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছে চারখাই। সম্প্রতি প্রস্তাবিত থানার জায়গা অধিগ্রহণ করার জন্য পরিদর্শন করেছেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা। বিয়ানীবাজার, জকিগঞ্জ ও কানাইঘাট থানার অন্তর্গত ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে চারখাই নামে নতুন থানা গঠন করা হচ্ছে। যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে চারখাইকে নতুন থানা হিসেবে গঠনের প্রস্তাব আগেই দেওয়া হয়েছিলো।

সিলেটে বর্তমানে মহানগর পুলিশের অধীনে ৪টি ও জেলা পুলিশের অধীনে ১১ টি থানা রয়েছে। বিয়ানীবাজার, জকিগঞ্জ ও কানাইঘাটের সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চারখাই নামে আরেকটি থানা গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি থানা গঠনের জন্য জায়গা পরিদর্শন করেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাম্মদ আবুল কালাম, সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) সুদীপ্ত রায়, বিয়ানীবাজার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খুশনূর রুবাইয়াত, বিয়ানীবাজার থানার ওসি অবনী শংকর কর, জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর নাসির ও কানাইঘাট থানার ওসি শামসুদ্দোহা, চারখাই ইউপি চেয়ারম্যান মাহমদ আলী উপস্থিত ছিলেন।

বিয়ানীবাজার উপজেলার তিন ইউনিয়ন এবং জকিগঞ্জ ও কানাইঘাট উপজেলার দুইটি করে ইউনিয়ন নিয়ে প্রস্তাব করা হয়েছে সিলেট জেলার অন্তর্গত নতুন চারখাই থানার।

প্রসঙ্গত, বিয়ানীবাজার উপজেলার আলীনগর ও চারখাই ইউনিয়ন বিয়ানীবাজার উপজেলা সদর থেকে সবচেয়ে দূরবর্তী হওয়ায় এক দশক পূর্বে চারখাইয়ে পুলিশ ফাঁড়ির স্থাপনের দাবি উঠে। স্থানীয়দের দাবির প্রেক্ষিতে চারখাই ইউনিয়ন পরিষদের কয়েকটি কক্ষ নিয়ে অস্থায়ী পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা হয়। স্থানীয় অধিবাসীরা ইউনিয়নের বিপরীত পাশে জকিগঞ্জ সড়কের পার্শ্ববর্তী স্থানে কিছু জায়গা পুলিশ ফাঁড়ির জন্য চিহ্নিত করেন। পুলিশ ফাঁড়ির জন্য চিহ্নিত করা ভূমি চারখাই থানার জন্য অধিগ্রহণ করা যায় কি না এ সম্ভাব্যতা যাচাই করতে পরিদর্শনে আসেন অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আবুল কালাম।

এ বিষয়ে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, চারখাইয়ে নতুন থানা গঠনের একটি প্রস্তাবনা রয়েছে। এর আলোকে ভূমি অধিগ্রহণের সম্ভাব্যতা দেখতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পরিদর্শনে আসেন। ভূমি অধিগ্রহণ শেষে পরবর্তী উদ্যোগ নেওয়া হবে।